অপরাধজেলা সংবাদময়মনসিংহসারাদেশ

শেরপুরে জমির সীমানা নিয়ে বিরোধের জেরে এক জনকে কুপিয়ে জখম

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে জমির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ইসমাইল হোসেন (৬৫) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা ।

ঘটনাটি ঘটে ৪ মার্চ শনিবার উপজেলার গৌরিপুর ইউনিয়নের হলদীবাটা গ্রামে। ইসমাইল হোসেন ওই গ্রামের মৃত আহেজ উদ্দিনের ছেলে।

এব্যাপারে ঝিনাইগাতী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, ইসমাইল হোসেনের ছেলে লাল মিয়ার সাথে জমির সীমানা নিয়ে প্রতিবেশী আবুল কালামের দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল।

এ নিয়ে গ্রামে একাধিক বার শালিশ দরবারও হয়েছে। ঘটনার দিন শনিবার সকাল সাড়ে ৯ টায় দিকে আবুল কালাম ও তার লোকজন লাল মিয়ার বাড়ির পূর্ব পাশে সীমানার একটি খুটি উপড়ে ফেলে।

এসময় লাল মিয়া ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে আবুল কালাম ও তার লোকজন লাল মিয়ার বাড়িতে প্রবেশ করে তার উপর আক্রমন করে এবং ঘরের বেড়া,আসবাবপত্র কুপিয়ে তচনচ ও টাকা পয়শা লুটপাট করে নিয়ে যায়।

একপর্যায়ে লাল মিয়ার পিতা ইসমাইল হোসেন আবুল কালামের লোকজনের হাত থেকে ছেলে লাল মিয়াকে উদ্ধার করতে এলে তারা ইসমাইল হোসেনকেও কুপিয়ে গুরুতরভাবে জখম করে।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে লাল মিয়া বাদি হয়ে ৬ জনকে আসামী করে ঝিনাইগাতী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অভিযোগটি মামলা হিসেবে আমলে নেয়া হয়নি। অপরদিকে বিবাদীরা অভিযোগ তুলে নিতে বাদি ও তার পরিবারের লোকজনকে নানাভাবে ভয়ভীতি ও প্রাননাশের হুমকি প্রদর্শন করে আসছে। ফলে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন পরিবারটি।

ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল আলম ভূইয়া বলেন বিষয়টি আমার জানা নেই।খুজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button