অপরাধরাজশাহীসারাদেশ

লালপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপরে ক্ষিপ্ত এলাকাবাসী, সরঞ্জাম জব্দ

নাটোরের লালপুরে অবৈধভাবে পাওয়ার ক্রাশারে আখ মাড়াই বন্ধ করতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় অভিযান বন্ধ করতে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে প্রসাশনের ওপর ক্ষিপ্ত হয় এলাকাবাসী। পরে থানা পুলিশের সহায়তায় পাওয়ার ক্রাশার সহ বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ ও জরিমানা করা হয়েছে।

 

আজ রোববার (৮ জানুযারি) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করে নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম-কৃষি) আসহাব উদ্দিন বলেন, গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস জোন এলাকার ওয়ালিয়া ইউনিয়নের দিলালপুর-রায়পুর গ্রামে অবৈধভাবে পাওয়ার ক্রাশারে আখ মাড়াই বন্ধ করতে অভিযান চালায় প্রশাসন। প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে স্থানীয় মসজিদের মাইকে উস্কানিমূলক ঘোষনা দিয়ে প্রশাসনের লোকজনের ওপর চড়াও হওয়ার চেষ্টা চালায় গ্রামবাসী। তাৎক্ষণিক থানায় খবর দিলে স্থানীয় চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপ ও অতিরিক্ত পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এ সময় তিনিসহ সহকারী কমিশনার (ভূমি) দেবাশীষ বসাক, নাটোর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসান তানভির, মিলের জিএম (প্রশাসন) মুস্তফা সারোয়ার উপস্থিত ছিলেন বলে জানান তিনি।

 

সহকারী কমিশনার (ভূমি) দেবাশীষ বসাক বলেন, প্রথমে এলাকার দুঃষ্কৃতিকারীরা সরকারি কাজে বাধা প্রদান করেন। পরবর্তীতে স্থানীয় চেয়ারম্যান জনগনের পক্ষে ক্ষমা চেয়ে পুলিশ ও প্রশাসনের সহায়তায় সফল অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ৫টি মাড়াইকলে অভিযান পরিচালনা করা হয় এবং ওই গ্রামের চিয়ামত আলীর ছেলে মো. মাহবুল হোসেনের মাড়াইকল জব্দসহ দুজনকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এবিষয়ে স্থানীয় কৃষকরা জানান, মিলে আখ সরবরাহ করে ঠিকমতো টাকা পাওয়া যায় না। ভোগান্তিতে পড়তে হয়। তাছাড়া মিলের চেয়ে মাড়াইকলে বেশি দামে আখ বিক্রি হয়। অনেক সময় অগ্রিম টাকা পাওয়া যায়। যার ফলে মিলে আখ না দিয়ে মাড়াইকলে দিতে সবাই আগ্রহী। এ ছাড়া খাবার জন্য গুড় তৈরিতে অনেকে আখ মাড়াই করে থাকেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button