অপরাধআইন ও বিচারজেলা সংবাদরংপুরসারাদেশ

মায়ের হত্যার বিচার দাবিতে মেয়ের অবস্থান

দিনাজপুরের খানসামায় কুমার পাড়ায় উপবালা রায়কে ধর্ষণের পর হত্যার বিচারের দাবি জানিয়ে অবস্থান কর্মসূ‌চি করছেন উপ বালা রায়ের মেয়ে বিপাশা রায় (১৩)।

শনিবার (১৫ এপ্রিল) সকালে উপজেলার টংগুয়া গ্রামের কুমারপাড়া পূজা মন্ডপের সামনে নিজ মায়ের হত্যার বিচারের দাবিতে গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে প্রথম দিনের মত অবস্থান করেছেন মেয়ে বিপাশা। এ সময় অবস্থানকারীর সঙ্গে উপবালা রায়ের ছোট মেয়ে শিশু বনলতা, বাবা মাসহ এলাকাবাসী অবস্থান করেন।

প্ল্যাকার্ড এ প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চেয়ে লিখা ছিল, ‘হায়রে কপাল মন্দ, আইন থাকলেও প্রশাসনের কার্যক্রম বন্ধ। বাহ! প্রশাসন কি চমৎকার, ক্ষমতা ও অপশক্তির ভয়ে ধর্ষক ও হত্যাকারীদের পাহারাদার।’

এর আগে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে এই হত্যাকাণ্ড বিচারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং সেই পরিবার নিজ মন্ডপের সামনে কালো পতাকা টাঙিয়ে দুর্গা পূজা বর্জন করেছিলেন।

বিপাশা রায় বলেন, ‘আমার বোন ও আমাকে যারা এতিম করেছে তাদের বিচার দ্রুত চাই। আমি গরীব বলে কি আমার মায়ের হত্যার বিচার পাব না? আমার ছোট বোন দুধের শিশুকে রেখে আমার মাকে হত্যা করা হয়েছে। আমি আমার মায়ের হত্যার বিচার চাই। প্রধানমন্ত্রী আমার মায়ের হত্যার বিচার করেন।’

প্রসঙ্গত, গত ২০২২ সালের ২৯ জুলাই শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি যাওয়ার পথে ধান ক্ষেতে দুই কন্যা সন্তানের জননী অপো রানী রায়ের লাশ বিবস্ত্র অবস্থায় পথচারীরা দেখতে পায়। পাশেই নিহতের সাথে ১০ বছরের মেয়ে বিপাশা রাণী রায়কে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পায় ৷ পরে পথচারীরা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধারের পর সুরতহাল করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। আর অজ্ঞান শিশুটিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

ছবির ক্যাপশন: নিজ মায়ের হত্যার বিচারের দাবিতে গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে প্রথম দিনের মত অবস্থান করেছেন মেয়ে বিপাশা। ছবিটি দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার টংগুয়া গ্রামের কুমারপাড়া পূজা মন্ডপের সামনে থেকে তোলা

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button