অপরাধবরিশালসারাদেশ

ভোলার বোরহানউদ্দিনে রাতের আঁধারে বাল্যবিবাহ, উপজেলা প্রশাসন নীরব ভূমিকায়

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় দেউলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে গত বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে দশটায় একটি বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠিত হয়, এমনই ঘটনা শুনা যায় স্থানীয়দের কাছ থেকে দেউলা ৯ নং ওয়ার্ডে মান্নান হরফে মুনাফের মেয়ে আসমা আক্তার দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী বলে আরো জানান স্থানীয় ৯নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় মান্নান হরফে মুনাফের বাসায় বরযাত্রী শুয়ে আছে তাদের সাথে কথা বললে তারা জানান বুধবার রাতে আনুমানিক সারে দশটার দিকে স্থানীয় মসজিদে গোপনে বিয়ে হয় এই বিষয়ে এলাকাবাসী কিছুই জানেন না। এলাকাবাসীর সাথে কথা বললে জানা যায় মান্নান হরফে মুনাফের মেয়ে আসমা আক্তার এবার দশম শ্রেণীর ছাত্রী।

এদিকে মান্নান ওরফে মুনাফের সাথে কথা বললে তিনি প্রথম বিষয়টি স্বীকার করলেও কিছুক্ষণ পর এড়িয়ে যান, এবং বলেন আমার মেয়ের কোন বিয়ে হয়নি তবে বিয়ের কার্যক্রম চলতেছে, মান্নান ওরফে মুনাফের কাছ থেকে টিকার সনদ, জন্ম নিবন্ধন দেখাতে বলা হলে তিনি তাহা দেখাতে অপরগতা প্রকাশ করেন,

উক্ত ওয়ার্ডের মেম্বার আবদুর রহমান এর সাথে মুঠো ফোনে তাহার ওয়ার্ডে ঘটে যাওয়া বাল্যবিবাহের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের উপস্থিতিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখেন পরে তিনি জানান মান্নান হরফে মুনাফের মেয়ে আসমা আক্তারের টিকা কার্ড ও জন্মনিবন্ধনে বয়স কম হওয়াতে রাতের আঁধারে গোপনে বাল্যবিবাহ দিয়েছেন, বিষয়টি তিনি আগে জানতেন না,এখন তার কিছু করার নেই

এ বিষয়ে বোরহান উদ্দিন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নওরীন হক এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান বিষয়টি আমি শুনেছি, তবে এখন তো বিয়ে হয়ে গেছে এখন আর আমার কিছু করার নেই, বিয়ের আগে হলে আমি ব্যবস্থা নিতে পারতাম,

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button