চট্টগ্রামজেলা সংবাদ

নিজে পরিশুদ্ধ হয়ে পরিশুদ্ধ সমাজ গড়ার জন্যই এই মাহে রামাদ্বান -প্রধান আলোচক ইসলামি ব্যাংক

রামাদ্বানে হলো একমাত্র মাস, যে মাসের নাম স্বয়ং আল্লাহ রাব্বুল আ’লামীন কুরআন মাজীদে উল্লেখ করেছেন। আরবী বারো মাসের মধ্যে অন্য কোনো মাসের নাম কুরআন মাজীদে নেই। এমাসের মধ্যে আমাদের কাজ হলো সংযমী হওয়া, বেশিবেশি ইবাদত করা, পরোপকারী হওয়া, দান খয়রাত করা, সমস্ত মন্দ কথা ও কাজ ছেড়ে দেওয়ার মাধ্যমে আল্লাহর তাক্বওয়া অর্জন করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা। ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ, মীরসরাই শাখার উদ্যোগে আয়োজিত ৪০তম বর্ষ পূর্তি ও ইফতার মাহফিলের আলোচনায় এভাবেই রামাদ্বান ও সিয়াম সাধনার গুরুত্ব তুলে ধরেন মাহফিলের প্রধান আলোচক বিশিষ্ট আ’লেমে দ্বীন ও ইসলামী স্কলার মাও. মোহাম্মদ সাফওয়ান বিন্ হারুন আল্ আযহারী। এসময় তিনি তাঁর বক্তব্যে যাকাত ভিত্তিক অর্থব্যবস্থার সুফল ও সুদ ভিত্তিক অর্থব্যবস্থার কুফল তুলে ধরার পাশাপাশি ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রশংসা করেন।তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন রামাদ্বানের রোযা দেওয়াই হয়েছে তাক্বওয়া অর্জন করার জন্য। আরও সুদের লেনদেনের সাথে জড়িত থেকে এবং রামাদ্বানের বাজারে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির সিন্ডিকেটে জড়িত থেকে কোনোভাবেই তাক্বওয়া অর্জন করা সম্ভব নয়। আগে নিজেকে সব রকম বদ অভ্যাস ও খারাপ কাজ থেকে ফেরত আনতে হবে। কারণ আল্লাহ তায়া’লা কুরআনুল কারিমে বলেছেন – ” হে ঈমানদারগণ! তোমরা আল্লাহ্কে ভয় করার মতো করে ভয় করো, আরও পূর্ণ মুসলমান হওয়া ছাড়া মরিও না।” আর এভাবেই নিজেকে পরিশুদ্ধ করার মাধ্যমে সমাজকেও পরিশুদ্ধ করা সম্ভব এই রামাদ্বান মাসে।

 

” সার্বজনীন কল্যাণে মাহে রামাদ্বান ” বিষয়কে সামনে রেখে ৩০ মার্চ, ২০২৩ খ্রী. ( বৃহস্পতিবার ) আয়োজিত উক্ত আলোচনা ও ইফতার মাহফিলে ইসলামী ব্যাংক মীরসরাই শাখার এপিও মোহাম্মদ ফরিদুল ইসলামের কুরআন তিলাওয়াত এবং এস এফ ও আরিফুল হকের ইসলামী সংগীতের মাধ্যমে শুরু হওয়া উক্ত মাহফিলে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শাখার সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার এন্ড ম্যানেজার অপারেসন্স মোহাম্মদ ইয়াসিন তালুকদার।

 

ইসলামী ব্যাংক মীরসরাই শাখার সিনিয়র অফিসার রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মীরসরাই উপজেলা শিক্ষা অফিসার এ.কে.এম. ফজলুল হক, সিনিয়র উপজেলা মৎস কর্মকর্তা নাসিম আল্ মাহমুদ, বিশেষ আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন মীরসরাই লতিফিয়া কামিল মাদ্রাসার সহ. অধ্যাপক মাও. নিজাম উদ্দিন। বিশেষ আলোচক তার বক্তব্যে বলেন ” আমরা যারা রোযা রাখি তাদের ৩টি শ্রেণী। প্রথমত অতি সাধারণ – যারা সারাদিন রোযা পালন করি, সালাত আদায় করি। দ্বিতীয়ত – যারা সারাদিন রোযা রাখি, সালাত আদায় করি, হুকুম আহকাম সমূহ মানার চেষ্টা করি, তৃতীয়ত – যারা সবাই ধরণের হুকুম আহকাম সহকারে সিয়াম সাধনা করি দিনে আরও রাতে কুরআন তিলাওয়াত ও কিয়ামুল লাইলের মাধ্যমে রাত শেষ করি।

 

ইসলামী ব্যাংক মীরসরাই শাখার এভিপি ও শাখা প্রধান মো. লুৎফুল্লাহিল মজীদ এর সভাপতিত্বে উক্ত ইফতার মাহফিলের প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মীরসরাই ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মো. নূরুল আবছার এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে বক্তব্য রাখেন মীরসরাই পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন।

 

উল্লেখ্য যে, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ৪০ বছর পুর্তি উপলক্ষে আজ কেন্দ্রের নির্ধারিত কর্মসূচি সারা দেশের একযোগে সকল শাখায় আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের অংশ হিসাবে আয়োজিত হয় মীরসরাই শাখার মাহফিল। উক্ত মাহফিলে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, বিভিন্ন মাদরাসা, স্কুল, কলেজের শিক্ষকবৃন্দ, বিভিন্ন স্তরের ব্যবসায়ীগণ ও সাধারণ ভোক্তাগণের সরব উপস্থিতিতে মাহফিল হয়ে উঠে প্রাণবন্ত। সর্বশেষে প্রধান আলোচক মাও. সাফওয়ান বিন্ হারুন আল্ আযহারী এর মুনাজাত পরিচালনার মাধ্যমে মাহফিল সমাপ্তি করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button