জীবনযাপনরংপুর

দেবীগঞ্জে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরন

কথায় আছে ‘কারো পৌষ মাস, কারো সর্বনাশ’। শীতকাল ধনীদের কাছে অনেক সুখকর সময় মনে হলেও দুস্থ অসহায় ‍মানুষের কাছে সর্বনাশই।
ঠাণ্ডা বাতাসের দাপট আর হিম হিম ঠাণ্ডা কুয়াশায় নাকাল জনজীবন। শীতের এই তীব্রতা বেশি কাবু করে নিম্নআয়ের মানুষকে। শীতার্ত অসহায় ও দুস্থ মানুষের উষ্ণতা দিতে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে পাশে দাঁড়াল ইয়ুথ পার্লামেন্ট ও গোল্ডেন রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড নুরানি কিন্ডার গার্টেন মাদ্রাসা দেবীগঞ্জ, পঞ্চগড় ।

 

শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ১০ টার দিকে ইয়ুথ পার্লামেন্ট ও গোল্ডেন রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড নুরানি কিন্ডার গার্টেন মাদ্রাসার পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত ‍ অসহায় দুস্থ মানুষের হাতে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও অত্র প্রতিষ্ঠানের সহ-সভাপতি সোবাহান আলী’র সভাপতিত্বে কম্বল বিতরণ করেন বিশিষ্ট সমাজসেবক ও অত্র প্রতিষ্ঠানের উপদেষ্টা সাইফুল ইসলাম সাগবর দেবীগঞ্জ উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিতু আক্তার, সোনাহার বিতর্ক পরিষদের সভাপতি সানোয়ার সাদী, যুব অধিকার পরিষদের সোনাহার ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আবু মিয়া, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফজলুর রহমান ফজু, উক্ত প্রতিষ্ঠানের উপদেষ্টা দেলোয়ার হোসেন, উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক হানিফ ইসলাম, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ইসরাফিল ইসলাম ইসরাফি, শিক্ষকমণ্ডলী ও বেশ কয়েকজন সেচ্ছাস্ববক।

নুরুরবাজার এর‌ আশপাশের দুস্থ মানুষ ইয়ুথ পার্লামেন্ট ও গোল্ডেন রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড নুরানি কিন্ডারগার্টেন মাদ্রাসা এর কম্বল পেয়ে নিজেদের অনুভুতি প্রকাশ করেন এভাবেই, ‘এই শীতে একমাত্র সম্বল আপনাদের কম্বল’।

 

বক্তব্যে সোনাহার বিতর্ক পরিষদের সভাপতি সানোয়ার সাদী বলেন- শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানো বিত্তবানদের নৈতিক দায়িত্ব। দরিদ্র ও হতদরিদ্র মানুষ, যাদের শীতবস্ত্র নেই, শীত নিবারণের জন্য সামান্য একটি কম্বল নেই, এখন যত দ্রুত সম্ভব এসব মানুষের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। তাই বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

গোল্ডেন রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড নুরানি কিন্ডারগার্টেন মাদ্রাসা এর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক আরিফ বিল্লাহ বলেন, সবার সম্মিলিত চেষ্টায় শীতের কষ্ট থেকে দরিদ্র মানুষদের রক্ষা করা সম্ভব। আসুন, আমরা সাধ্যমতো শীতার্তদের পাশে দাঁড়াই এবং শীতবস্ত্র বিতরণ করি। এ কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে জানান তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button