জেলা সংবাদরংপুর

ঠাকুরগাঁওয়ে সিঁদুর খেলার মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হল বাসন্তী পূজা

ঠাকুরগাঁওয়ে সিঁদুর খেলার মধ্য দিয়ে আনন্দমুখর পরিবেশে পালিত হয়ে গেল হিন্দু ধর্মালম্বীদের বাসন্তী পুজা।

গত সোমবার দেবীর আমন্ত্রণ অধিবাস এরপর মঙ্গলবার ২৮ মার্চ সকালে কলাবউ স্থাপনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয় সপ্তমী বিহিত পূজা।

শহরের গোবিন্দ জিউ মন্দিরে এ পুজার আয়োজন করা হয়। পুজা উপলক্ষে মন্দির প্রাঙ্গনে বসেছিল গ্রামীনমেলা।

গোবিন্দনগর মন্দিরের পুরোহিত সাধন চক্রবর্তী জানান ৪০ বছর ধরে এ মন্দিরে মা বাসন্তীর পূজা হয়ে আসছে। তাছাড়াও এই মন্দিরে বাসন্তী পুজা, দূর্গা পুজা, সহ সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে।

পূজা পরিচালনা কমিটির সভাপতি দিলীপ কুমার দে বলেছেন আমাদের এখানে ধর্ম-বর্ণ-নর্বিশেষে সকলেই একসাথে এই বাসন্তী মায়ের পূজা অংশগ্রহণ করেছে ।

উৎসবমুখর পরিবেশে এবারও এই বাসন্তী পূজা অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। আর শান্তিপূর্ণভাবে পূজা অনুষ্ঠিত হওয়ায় আমরা সকলে আনন্দিত।

এদিকে মহা দশমী বাসন্তী মায়ের বিসর্জনের মধ্য দিয়ে বিদায় বেলায় মন্দির প্রাঙ্গণে বিবাহিত হিন্দু নারীরা দেবীর কপাল ও পায়ের ওপর সিঁদুর দান করে দেবীকে মিষ্টি মিষ্টিমুখ করান। পরে একে অপরকে সিঁদুর মাখিয়ে দেন।

এরপর সদবা নারীরা সিঁদুরের স্থায়িত্ব অর্থাৎ স্বামীর দীর্ঘজীবন কামনায় সিঁদুর খেলায় মেতে উঠে।

ভক্তদের মতে মা দুর্গা অশুভ শক্তির ধ্বংস করতে এই ধরায় এসেছিলেন। ৫ দিন মর্তধাম থেকে কৈলাস ধামে ফিরে গেলেন।

প্রতিবারের ন্যায় এবারও বাসন্তী পূজার দশমী দিনে রংবে রঙের সাজে সিঁদুর খেলায় মেতে উঠেছিল হিন্দু সম্প্রদায়ের নারী ও পুরুষেরা।

এছাড়াও ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন স্থানে এই বাসন্তী পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার ৩১ মার্চ দশমী পূজার মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হলো। এরপর বিকেলে পৌর শহরের রিভারভিউ উচ্চ বিদ্যালয় এর পেছনে টাঙ্গন নদীর দুর্গার ঘাটে প্রতিমা বিসর্জন করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button