আইন ও বিচাররাজশাহীসারাদেশ

জয়পুরহাটে হত্যা মামলায় একই পরিবারের ৬ জনের যাবজ্জীবন

জয়পুরহাটে হত্যা মামলায় স্বামী-স্ত্রী, তিন ছেলে ও জামাইসহ ৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক মো. নুরুল ইসলাম এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাদসা ইউনিয়নের দেবরাইল গ্রামের মৃত কোমেজ উদ্দিনের ছেলে আহাম্মদ আলী (৭০), তার স্ত্রী মিনা বেগম (৫৫), তাদের তিন ছেলে আলতাব হোসেন (৪৪), মোন্তাজ আলী (৪০), এন্তাজ আলী (৩৪) এবং জামাই একই এলাকার মৃত আব্দুল সাত্তারের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৪৪) বলে সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা। রায়ের সময় আদালতে আসামিরা উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০০৭ সালের ১১ এপ্রিল সকালে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে বসে সংসারের বিষয়ে আলাপ করছিলেন জেলার ভাদসা ইউপির দেবরাইলের আকবর আলী। এ সময় কোদাল, লোহার রড, শাবল, লাঠি ও ছোরা নিয়ে অতর্কিত হামলা করেন আসামিরা। আকবর আলীর পরিবারের ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে আসামিরা হুমকি দিয়ে চলে যায়। সেসময় আসামীদের আঘাতে গুরুতর আহত হন আজিজুল ইসলাম, তার ভাই আব্দুর রশিদ ও তাদের বাবা আকবর আলী। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় আব্দুর রশিদকে রাজশাহী মেডিকের কলেজ হাসপাতালে আর আকবর আলীকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ২০০৭ সালের ৫ মে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আজিজুল ইসলাম। এ ঘটনায় ওই বছরের ১১ এপ্রিল তারিখে জয়পুরহাট থানায় হত্যা মামলা করেন নিহতের ভাই মিজানুর রহমান মিঠু। পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ছয়জনের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল পিপি বলেন, দীর্ঘ শুনানি শেষে জয়পুরহাট অতিরিক্ত দায়রা জজ ১ম আদালতে এ রায়ের আদেশ দিলে আসামিদের কারাগারে পাঠিয়ে দেয়।

আসামি পক্ষে আইনজীবী মোসা. আকতার বানু জানান, এ রায়ের বিপক্ষে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন তারা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button