অপরাধআইন ও বিচারজেলা সংবাদসারাদেশ

আটোয়ারী সাব রেজিস্ট্রি অফিসে তথ্য সংগ্রহ সাংবাদিক লাঞ্চিত

মোঃ মোমিন ইসলাম সরকার ,পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ

পঞ্চগড়ের আটোয়ারী সাব রেজিস্ট্রার অফিসের দুর্নীতির অভিযোগে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে অবরুদ্ধ হয়ে লাঞ্চিত ও হেনস্তার শিকার হয়েছে দুই সাংবাদিক। সাংবাদিক লাঞ্চিতের ঘটনার সাথে জড়িত সাব রেজিস্ট্রার মোঃ মিজানুর রহমানকে প্রধান আসামী করে ৭ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জনকে আসামী করে আটোয়ারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন লাঞ্চিত হওয়া এটিএন বাংলার সাংবাদিক সিদ্ধার্থ কর্মকার।

মামলার বাদী সিদ্ধার্থ কর্মকার জানান, গত মঙ্গলবার (১১ এপ্রিল) দুপুরে আটোয়ারী সাব রেজিস্ট্রার অফিসে এ ঘটনাটি ঘটে। তিনি বলেন, আটোয়ারী সাব রেজিস্ট্রার মোঃ মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ব্যাপক ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে নিরপেক্ষ ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করতে হলে বিষয়টি তলিয়ে দেখা দরকার। সাব রেজিস্ট্রারের সাথে কথা বলার জন্য আমরা পাঁচজন সাংবাদিক রেজিস্ট্রি অফিসে যাই। সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পাওয়া মাত্রই সাব রেজিস্ট্রার মিজানুর রহমান দ্রুত সটকে পড়ে। সাংবাদিকরা জানান, তার অদৃশ্য ইশারায় কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই এটিএন বাংলার সাংবাদিক সিদ্ধার্থ কর্মকার ও চ্যানেল এস’র সাংবাদিক আব্দুর রউফের উপর হামলা করেন জিয়ারুল, নাসিরুল, গোলাম উদ্দীন, জাহেদুল, রুস্তম, মিনারুল সহ আরো কয়েকজন। দুই সাংবাদিককে তারা ধাক্কাইতে ধাক্কাইতে অফিসের একটি কক্ষে মোবাইল ফোন কেড়ে নিয়ে তালা বন্ধ করে রাখে। বাহিরে থাকা অপর সাংবাদিকেরা থানায় ফোন দিলে আটোয়ারী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে অবরুদ্ধ সাংবাদিকদের উদ্ধার করে। বাহিরে থাকা অন্যান্য সাংবাদিকরা হলেন, সময় টেলিভিশনের সাংবাদিক আব্দুর রহিম, সোহাগ হায়দার, দৈনিক ভোরের আকাশ পত্রিকার প্রতিনিধি নূর হাসান ।

সিদ্ধার্থ কর্মকার বলেন, পুলিশ আমাদেরকে উদ্ধার করার পর সহকর্মীদের সাথে আলোচনা করে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষনিক আটোয়ারী থানায় একটি জিডি করেছি। যাহার নং-৪৭৩,তারিখ-১১/০৪/২০২৩ ইং। জিডির বিষয়টি জানাজানি হলে,হামলাকারীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। পরে ঘটনাটি আমার উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দায়ের করি। যাহার মামলা নং-০৯, তারিখ: ১৩/০৪/২০২৩ ইং।

আটোয়ারী থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ সোয়েল রানা সাব রেজিস্ট্রি অফিসে অবরুদ্ধ অবস্থায় দুই সাংবাদিককে উদ্ধারের ঘটনা শিকার করে বলেন, সাংবাদিকের মোবাইল ফোন পেয়ে তাৎক্ষনিক এসআই আবু তালেব এর নেতৃত্বে পুলিশ ফোর্স পাঠিয়ে সাব রেজিস্ট্রার অফিসের তালাবদ্ধ একটি কক্ষ থেকে অবরুদ্ধ দুই সাংবাদিকদেরকে উদ্ধার করা হয়েছে।

আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সোহেল রানা বলেন, এটিএন বাংলার সাংবাদিক সিদ্ধার্থ কর্মকার বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছেন। অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button